বহাল থাকবে আগামী মার্চ পর্যন্ত

সংক্রমন ঠেকাতে ইউকেতে নয়া আইন: প্রয়োজনে সেনাবাহিনী

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মহামারী করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখতে মঙ্গলবার পার্লামেন্টে কঠোর পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছেন। কার্ফিউ জারি করা হয়েছে পাব, বার এবং রেষ্টুরেন্টের উপর। মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে স্টাফ ও কাস্টমারদের জন্য। মাস্ক না পরলে সর্বোচচ ২শ পাউন্ড জরিমানা। রুল অব সিক্স মানতে হবে সর্বত্র। সেল্ফ আইসোলিশন না করলে বা প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত রুল না মানলে সর্বোচচ ১০ হাজার পাউন্ড পর্যন্ত জরিমানা আরোপ করা হবে। সংক্রমন ঠেকাতে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত আইন কার্যকর করতে পুলিশকে সহযোগিতার জন্যে প্রয়োজনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে। তবে মঙ্গলবার পার্লামেন্টে ঘোষিত প্রধানমন্ত্রীর এই নিয়ম বা আইন শুধু ইংল্যান্ডে কার্যকর হবে। স্কটল্যান্ড, ওয়েলস এবং নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে আলাদা আলাদাভাবে কঠোর পদক্ষেপ ঘোষণা করা হয়েছে। পার্লামেন্টে কঠোর নীতির ঘোষণার আগে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসস স্কটিশ এবং ওয়েলসের ফার্স্টমিনিষ্টার এবং নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড প্রশাসনের সঙ্গে আলাপ করেছেন।

নতুন আইন অনুযাযী ইংল্যান্ডে ২৪শে সেপ্টেম্বর, বৃহস্পতিবার থেকে পাব, বার এবং রেষ্টুরেন্ট বন্ধ থাকবে রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত এবং টেবিল সার্ভিসে আরো সীমিত করতে হবে। ৬ জনের বেশি কোনো টেবিলে বসার সুযোগ দেওয়া যাবে না এবং এক গ্রুপ আরেক গ্রুপের সঙ্গে মিলতে পারবে না। প্রয়োজনে ট্রেইস করার জন্যে কাস্টমারদের কন্টাক্ট ডিটেইলস রাখার জন্যে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে আইনী অধিকার দেওয়া হয়েছে। ৬ জনের বেশি রিজারভের্শন নিলে এবং সামাজিক দূরত্ব ও কন্টাক্ট ডিটেইলস দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে সর্বোচচ ১০ হাজার পাউন্ড পর্যন্ত জরিমানা আরোপ করা হবে। টেইকওয়ে লেইজার সেন্টার, সিনেমা, বিঙ্গু হল এবং পর্যটন ব্যবসাও একই নিয়মে চলবে। তবে টেইকওয়ে ডেলিভারী স্বাভাবিক থাকবে।

সোমবার থেকে শুধু কাস্টমার নয়, বার, পাব এবং রেষ্টুরেন্টসহ সব দোকানপাটে স্টাফকে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। মাস্ক না পরলে সর্বো”চ ২শ পাউন্ড জরিমানা গুনতে হবে। আর বৃহস্পতিবার থেকে টেক্সি এবং প্রাইভেট হায়ার কার বা মিনিক্যাবের যাত্রীদের জন্যেও মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

প্রথমসারির বা প্রধান কর্মকর্তা-কর্মচারী যাদেরকে কর্মস্থলে না গেলে চলে না, তারা ছাড়া বাকী সবাইকে সম্ভব হলে বাড়ি থেকে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যদিও অগাস্ট থেকে কর্মস্থলে ফেরার জন্যে তাগিদ দিয়েছিল সরকার।

২৮ সেপ্টেম্বর, সোমবার থেকে বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথির সংখ্যা ৩০জন থেকে নামিয়ে ১৫ জন করতে হবে। তাদেরকে অবশ্যই ৬ জনের গ্রুপে বিভক্ত থাকতে হবে। ফিউনারেলে সর্বোচচ ৩০ জন উপস্থিত থাকতে পারবেন। তবে আলাদা আলাদা ৬ জনের গ্রুপ থাকতে হবে।

ক্রিড়া অনুষ্ঠানে দর্শক রিটার্নের সিদ্ধান্ত আপাতত স্থগিত থাকবে। তবে ২৪ সেপ্টেম্বর, বৃহস্পতিবার বার থেকে অভ্যন্তরিক ক্রিড়া ক্ষেত্রে রুল অফ সিক্স অর্থাৎ ৬ জনের বেশি জমায়েত হওয়া যাবে না। ফাইভ এ সাইড ফুটবল নিষিদ্ধ।

সেল্ফ আইসোলিউশন আইন না মানলেও সর্বোচচ ১০ হাজার পাউন্ড আরোপ করা হবে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও যদি সেল্ফ আইসোলিউশন নিয়ম ভঙ্গ করা হয় তা হলে তাদেরকেও জরিমানা আরোপ করা হবে।

স্কটল্যান্ডেও পাব এবং রেষ্টুরেন্টে রাত ১০টা থেকে কার্ফিউ জারি থাকবে। অভ্যন্তরে দু পরিবারের কেউ মিলিত হতে পারবে না। তবে বাইরে বা প্রাইভেট গার্ডেনে দুটি পরিবারের সর্বোচচ ৬ জন মিলিত হতে পারবে। ২০ বছর থেকে ১৮ বছর বয়সী দু পরিবারের সর্বোচচ ৬ জন মিলিত হবার সুযোগ পাবে। তবে ১২ বছরের নীচের শিশুদের ক্ষেত্রে বাইরে খেলাধুলার ক্ষেত্রে কোনো বিধি নিষেধ নেই।

উল্লেখ্য ব্রিটেনে মঙ্গলবার গত চব্বিশ ঘন্টায় আরো ৪ হাজার ৯শ ২৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে আরো ৩৭ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *