বাংলাদেশ দলে ডাক পেলেন প্রবাসী রাহবার ও নায়েব

কানাডা প্রবাসী ফুটবলার রাহবার ওয়াহেদ খান সেহরান কিরগিজস্তানের ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের জন্য জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন। তাই ঢাকার বনানীর বাসায় আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

সেহরানের বাবা আকরাম আলী খান ও মা ঢাকার বনানীতে থাকেন। আকরাম-তানিয়া দম্পতির দুই ছেলে দেশের বাইরে থাকেন, করছেন পড়াশোনা। বড় ছেলে সেহরান কানাডায়, ছোট ছেলে রাফসানি ওয়াহেদ খান সায়ের যুক্তরাষ্ট্রে।

দুই ভাই দুই দেশেই ফুটবল খেলেন। বড় ভাই রাহবার স্বপ্ন পূরণের দ্বারপ্রান্তে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী মাসে কিরগিজস্তানে অনুষ্ঠিতব্য ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টেই লাল-সবুজ জার্সি গায়ে অভিষেক হতে পারে তার।

ছেলের জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার পর থেকে আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধবদের ফোন পাচ্ছেন আকরাম আলী খান। সেহরানের বাবা-মায়ের মধ্যে ভর করেছে যেন ঈদ-আনন্দ।

সেহরানের প্রথম লক্ষ্য জেমি ডে’র একাদশে জায়গা করে নেয়া। বুধবার কানাডা থেকে এক ভিডিও বার্তায় এই ফরোয়ার্ড বলেছেন, ‘আমি প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ জাতীয় দলে ডাক পেয়েছি। ট্রাইনেশন কাপে ডাক পাওয়ায় আমি এবং আমার পরিবারের সবাই খুশি। এটা আমার এবং আমার পরিবারের জন্য গর্বের মুহূর্ত। কবে দলে যোগ দেব- তা নিয়ে আমি রোমাঞ্চিত।’

‘আমার ফোকাস থাকবে একাদশে জায়গা করে নিয়ে দলকে সাপোর্ট করা। আমার কোচ জেমি ডে এরইমধ্যে আমাকে দায়িত্বটা বুঝিয়ে দিয়েছেন। ফরমেশনসহ অন্যান্য বিষয় নিয়েও আমাকে উপদেশ দিয়েছেন’- বলেছেন রাহবার ওয়াহেদ খান সেহরান।

অন্যদিকে, জাতীয় দলে ডাক পাওয়া ফ্রান্স প্রবাসী ফুটবলার নায়েব তাহমিদ ইসলাম বেশ রোমাঞ্চিত। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়ে এই মিডফিল্ডার প্যারিস থেকে এক ভিডিও বার্তায় বলেছেন, ‘আমি একজন ফুটবলপ্রেমী। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছি। আমি খুবই আনন্দিত।’

জেমি ডে’কে ধন্যবাদ জানিয়ে নায়েব তাহমিদ ইসলাম বলেছেন, ‘কোচ জেমি ডে’কে এবং বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমাকে জাতীয় দলে ডাকার জন্য।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *