অবশেষে ‘ছাগল কাপ’ জিতলেন অবিবাহিতরা

ফুটবল নিয়ে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় আয়োজন করা হয় এক ব্যতিক্রমধর্মী প্রীতি ম্যাচ। যেখান অংশগ্রহণ করেছেন এলাকার বিবাহিত ও অবিবাহিতরা। সেই ম্যাচের নামকরণ করা হয়েছে ‘ছাগল কাপ’ ফুটবল ম্যাচ নামে।

গতকাল বিকালে উপজেলার মশিন্দা মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। বিবাহিত ও অবিবাহিতরা দুই দলে বিভক্ত হয়ে ‘ছাগল কাপ’ ফুটবল ম্যাচ খেলেন। ৬০ মিনিটের খেলায় অবিবাহিত ফুটবল একাদশ ২-১ গোলে বিবাহিত ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে। উৎসবমুখর পরিবেশে খেলা শেষে পুরস্কার হিসেবে বিজয়ী অবিবাহিত দলকে দেওয়া হয় একটি খাসি।

স্থানীয়রা জানান, খেলার একদিন আগে দিনব্যাপী এলাকায় মাইকিং করে ‘ছাগল কাপ’ ফুটবল ম্যাচ উপভোগের জন্য দর্শকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। এই ফুটবল ম্যাচের উদ্যোক্তা ছিলেন মশিন্দা ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. রেজাউল করিম।

তিনি জানান, খেলাটি উপভোগ্য করতে ও খেলোয়াড়দের বাড়তি বিনোদন দিতে পুরস্কার হিসেবে একটি খাসি রাখা হয়। খেলোয়াড়দের চাঁদার ১১ হাজার টাকায় কেনা হয় খাসিটি। খেলা শেষে খাসিটি জবাই করে রাতেই ‘খিচুড়ি ভোজ’ করা হয় স্থানীয় মশিন্দা বাজারে। খেলোয়াড় ছাড়াও এলাকার শতাধিক মানুষ এই ভোজে অংশ নেন।

ব্যতিক্রমধর্মী এই ফুটবল ম্যাচ নিয়ে স্থানীয় শিক্ষক আবদুস সালাম বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে বেশ কয়েক মাস ধরে মাঠে ফুটবল খেলা হয়নি। গ্রামের অপেশাদার খেলোয়াড়দের এই ফুটবল খেলাকে ঘিরে এলাকার মানুষের আগ্রহের কমতি ছিল না। তার ওপর বিবাহিত বনাম অবিবাহিত দলের খেলাটি বিনোদনের খোরাক হয়ে ওঠে মানুষের কাছে। বেশ উপভোগ্য ছিল ফুটবল ম্যাচটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *