বাংলাদেশে উদ্ভাবিত টিকা সিঙ্গেল ডোজ! আগ্রহী ভারত

গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের গবেষণাগারে বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিস্কারক দলের প্রধান এই দুই বৈজ্ঞানিক দলনেতা কাকন নাগ ও নাজনীন সুলতানা নতুন আবিষ্কৃত ভ্যাকসিন ‘বঙ্গভ্যাক্স’ সম্পর্কে বলেন, ‘বঙ্গভ্যাক্সের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি সিঙ্গেল বা একক ডোজ টিকা। বিশ্বের অনেক টিকাই একাধিক ডোজের। কিন্তু এটি একক ডোজের হওয়ায় একবার নিলেই যথেষ্ট।

‘পৃথিবীতে মাত্র হাতেগোণা কয়েকটি দেশ ভ্যাকসিন আবিস্কারে সক্ষম হয়েছে এবং উপমহাদেশে আমরা দ্বিতীয় দেশ যারা করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিস্কার করেছি। আমরা এখন অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি, কবে বঙ্গভ্যাক্স আসবে এবং আমরা তখন অন্য দেশকেও এই ভ্যাকসিন দিয়ে সহায়তা দিতে পারবো, বৈজ্ঞানিক কাকন নাগ ও নাজনীন সুলতানা তাদের বক্তব্যে গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের গবেষণাগারকে আন্তর্জাতিক মানের বলে বর্ণনা করেন ।

গতকাল বুধবার ভারতের বায়োকোনের এক সিনিয়র পরিচালক ফোনে যোগাযোগ করেছেন বলে জানান বিজ্ঞানী নাজনীন সুলতানা। তিনি বলেন, তারা বঙ্গভ্যাক্স নিতে চান বলে জানিয়েছেন। টিকাটি প্রকাশনার জন্য জমা দেয়া হয়েছে জানিয়ে নাজনীন আরো বলেন, সেগুলো দেখেছেন এবং পড়েছেন বলে জানিয়েছেন ভারতের বায়োকোনের বিজ্ঞানীরা। তারা বলেছেন, ‘তোমাদের সূক্ষ্ম ডাটা সংরক্ষণ কাজের জন্য আমরা বিশ্বাস করতে বাধ্য হয়েছি। টিকাটি পৃথিবীতে সুপরিচিতি পাবে।

বাংলাদেশ এত এগিয়ে যাওয়ায় প্রতিবেশী দেশ হিসেবে আমার গর্বিত। এদিন বঙ্গভ্যাক্সের সর্বশেষ অবস্থার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে ড. কাকন নাগ বলেন, এটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য উৎপাদন করতে জিএমপি (গুড ম্যানুফ্যাকচারিং পলিসি) লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাইন্টিফিক রিভিউ কমিটি এটি দিয়েছে। ফলে টিকাটি টেকনোলজিক্যালি ও সাইন্টিফিক্যালি কার্যকর ও নিরাপদের প্রমাণ পাওয়া গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকারের কাছ থেকে এই স্বীকৃতি এসেছে। এখন ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের শুরু করতে ভলান্টিয়ার এবং প্রয়োগের ব্যবস্থাপনার জন্য বিএমআরসির এথিক্যাল রিভিউ কমিটির অনুমোদন দরকার।

মার্কিন প্রতিষ্ঠান মডার্নার টিকার এই অনুমোদনের জন্য মাত্র ৪ দিন লাগলেও তিন সপ্তাহেও পায়নি বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান গ্লোব। বিষয়টি তুলে ধরে কাকন নাগ বলেন, এটি কখন পাওয়া যাবে, তাও জানি না। অনুমোদনটি পেলে ট্রায়াল শুরু হবে, এ বছরেই দেশবাসীর কাছে পৌঁছানো যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *